বকুল

বকুল: শীতের রাত্রি| পথের ধারে কেরোসিনের আলোগুলি কাঁচের উপর হিম পড়িয়া ধোঁয়াটে হইয়া গিয়াছে| তাহারই উপর দিয়া দুএকটা শিশিরের ফোঁটা গড়াইয়া পড়িয়াছে| তাহার জন্য কাঁচগুলি কাটা বলিয়া মনে হইতেছে| পথের পাশে একস্থানে একটা আতা গাছের নীচে আবর্জ্জনার স্তূপ| তাহার ভিতর গর্ত্ত করিয়া কুকুর-মাতা তাহার সদ্যপ্রসূত সন্তানগুলিকে লইয়া শুইয়া আছে| রাস্তা জনশূন্য| শীতের সন্ধ্যা নামিয়া আসিলেই গৃহস্থ কেহ বড় আর বাহিরে থাকে না| …
দীনেশরঞ্জন দাশ (দীপক সেনগুপ্তের সৌজন্যে)

This entry was posted in literature. Bookmark the permalink.

Leave a Reply

Your email address will not be published.

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>