প্রথম পাতা

শহরের তথ্য

বিনোদন

খবর

আইন/প্রশাসন

বিজ্ঞান/প্রযুক্তি

শিল্প/সাহিত্য

সমাজ/সংস্কৃতি

স্বাস্থ্য

নারী

পরিবেশ

অবসর



লেখক সূচী


পুরনো দিনের বই


সন্তানের নাম


মতামত ও আলোচনা


মহাভারতের চরিতাবলী


রামায়ণের চরিতাবলী


বিশিষ্ট বিজ্ঞানী


বিশিষ্ট চিত্রশিল্পী


বিশিষ্ট সঙ্গীতজ্ঞ


রাগসঙ্গীত প্রবেশিকা


যদি তোর ডাক শুনে


বাংলা লিঙ্ক


বইয়ের খবর


এন.জি.ও-র খবর


পারিবারিক হিংসা প্রতিরোধ আইন, ২০০৫


মানুষ পাচার প্রতিরোধে পুলিশের সহায়িকা

 

 

 


 

নতুন সংযোজনঃ অক্টোবর ১৫ - অক্টোবর ৩০, ২০১৪

গানের নেপথ্যে:

রবীন্দ্রনাথের একটি গানের একটি ছোটো মেয়ের টিকা জানতে চাইলে এইখানে ক্লিক করলে পাবেন । ...

**************

অবসর-এর পুরনো পাতা থেকে...

বিবিধ প্রসঙ্গ: এন.আর.আই-দের পরিত্যক্তা স্ত্রী - বিদেশে বসবাসকারী ভারতীয়দের (এন.আর.আই) সঙ্গে বাড়ির মেয়েদের বিয়ে দেওয়ার একটা প্রবণতা বাঙালীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে। পাঞ্জাব এবং গুজরাতে অবশ্য এটা ঘটছে অনেক বেশি মাত্রায়। বিদেশে বসবাসকারী পাত্র বহু টাকা রোজগার করে, মেয়েকে সে সুখে রাখবে - এই ধারণাই এই প্রবণতার পেছনে কাজ করছে।....
অবসর, ২০০৪

গৃহ পরিচারিকাদের জীবনকথা - গত কয়েক দশকে মানবাধিকার আন্দোলনের প্রভাবে বিশ্বের নারীমুক্তি আন্দোলনে যে জোয়ার এসেছে - তার অভিঘাতে আমাদের দেশের মেয়েদের জীবিকার প্রশ্নটি সোচ্চর হয়ে উঠেছে। আমাদের মত দেশে দারিদ্রের সঙ্গে জীবিকার সম্পর্ক ওতপ্রোতভাবে জড়িত। এখানকার বিশাল শ্রমবাহিনীকে ব্যবহার করার মত কর্মসংস্থানের সুযোগ কোনও সৃষ্টি হয় নি। বলাই বাহুল্য যে এই শ্রমবাহিনীর এক বৃহৎ অংশ হল মেয়েরা। অতীতের সংগঠিত শিল্পগুলিতে ....
বেলা বন্দ্যোপাধ্যায়

**************
চেঁচিয়ে লাভ নেই!(২) বধিরতা নিয়ে কিছু পরিসংখ্যান দেখা যাক। শব্দের শক্তি মাপা হয় একটু গোলমেলে উপায়ে, তাকে বলে ডেসিবেল বা ডিবি। সেটা কী তা বিশদভাবে জানার প্রয়োজন নেই, এটা জানলে হবে যে ০ ডিবির দশগুণ হোলো কুড়ি ডিবি, চল্লিশ ডিবি হবে একশো গুণ, ইত্যাদি। সাধারণ সুস্থ সবল শ্রবণশক্তিবিশিষ্ট মানুষ যে মৃদুতম যে শব্দটি শোনেন (অর্থাত্‍‌ আছে কি নেই তার তফাত্‍‌ করতে পারেন) সেই শব্দের শক্তিকে ধরা হয় ০, শূন্য ডিবি। কথোপকথন চালাতে শব্দের অন্তত ২৫ ডিবি শক্তি লাগে, সেটি ফিস্‌ফিসানির বা শান্ত লাইব্রেরি ঘরের শব্দশক্তি। সাধারণত কথাবার্তা চলে ৬০ ডিবিতে। ....
সুমিত রায়
বাংলা কবিতার এক প্রাথমিক পাঠ:    কবিতা লেখা হয় দুই উপায়ে, ছন্দের সাথে অথবা ছন্দ ছাড়া। অধিকাংশ বাংলা কবিতা লেখা হয় ও হয়েছে ছন্দের ব্যবহারে, এবং বাংলার ভান্ডারে রয়েছে বিবিধ ছন্দ-রতন। মনোহরণ উদাহরণ দিয়ে সেইসব ছন্দ ও তাদের রূপ ও রীতি পাঠকের কাছে পেশ করার উদ্দেশ্যে এই রচনার আয়োজন। কবিতা ভালবাসেন এমন অনেকের ছন্দকে আলাদা করে জেনে নেয়ার সুযোগ হয়নি। বর্তমান লেখক তাদের একজন। ছন্দ না জানায় ভালোলাগা কবিতাও পুরোপুরি বোঝা হয় না। মুশকিল দূর করার ইচ্ছেয়, ছন্দ নিয়ে পড়াশুনো করার এক পরিকল্পনাকে মনে ধরে রেখেছি অনেকদিন। ...
দেবব্রত ভৌমিক

বঙ্কিমচন্দ্র স্মরণে - সাহিত্যের ক্ষেত্রে বঙ্কিমের স্থান: বঙ্কিমচন্দ্র জন্মগ্রহণ করেছিলেন ২৭ জুন, ১৮৩৮ সালে, বেঁচেছিলেন মাত্র ৫৬ বৎসর । মাত্র এ কয়েক বৎসরে তাঁর বিশাল কর্মকাণ্ডের ব্যাপ্তি অকল্পনীয় । শ্রীঅরবিন্দের ভাষায়- 'একাধারে তিনি ছিলেন পণ্ডিত, কবি, প্রবন্ধকার, ঔপন্যাসিক, দার্শনিক, আইনজ্ঞ, সমালোচক, শাসক, ভাষাতত্ত্ববিদ, ধর্মার্থ বিচারক ইত্যাদি অনেক কিছু'।এই মনিষীর শতসপ্ততিপঞ্চক জন্মবর্ষ উদ'যাপনে 'অবসরের' নিবেদন শ্রীঅরবিন্দের একটি ছোট প্রবন্ধাংশ ও রবীন্দ্রনাথের একটি কবিতা ...
শ্রীঅরবিন্দ (শঙ্কর সেনের সৌজন্যে)

ছবিতে বর্ষায় সিমলা:  কয়েক বছর আগে বর্ষাকালে সিমলা গিয়েছিলাম। কয়েকটি দৃশ্য আমার বেশ ভাল লেগেছিল আর তাই প্রায়ই মনে পড়ে। আমার ভাল লাগা আপনাদের সঙ্গে ভাগ করে নিতে চাই অতএব এই ছবিগুলো “অবসর”-এর কোলে ভাসাচ্ছি। ...
শুভেন্দু প্রকাশ চক্রবর্তী
জ্ঞানান্বেষণ: সাপ্তাহিক ‘জ্ঞানান্বেষণ’ সে যুগের একটি উল্লেখযোগ্য পত্রিকা। ব্রজেন্দ্রনাথ জানিয়েছেন যে পত্রিকাটি “ইয়ং বেঙ্গল”দের মুখপত্র ছিল। পত্রিকাটি প্রথম প্রকাশিত হয় ১৮৩১ সালের ১৮ই জুন দক্ষিণানন্দন (দক্ষিণারঞ্জন ?) মুখোপাধ্যায়ের সম্পাদনায়। তবে পত্রিকা পরিচালনার যাবতীয় কাজ করতেন গৌরীশঙ্কর তর্কবাগীশ। এদের দু’জনকেই কটাক্ষ ক’রে সে সময়ের ‘সম্বাদ তিমিরনাশক’ একটি মন্তব্য ছাপিয়েছিল। । ...
দীপক সেনগুপ্ত

সংবাদ পূর্ণচন্দ্রোদয়:    ১৮৩৫ সালের ৮ই জুন বুধবার ( ২৮শে জৈষ্ঠ্য, ১২৪২ বঙ্গাব্দ ) হরচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পাদনায় আর একটি মাসিক পত্রিকা ‘সংবাদ পূর্ণচন্দ্রোদয়’ প্রকাশিত হতে থাকে। প্রতি পূর্ণিমায় প্রকাশ পেত বলেই হয় ত এই নামকরণ। পত্রিকাটির শিরোভাগে যে শ্লোকটি লেখা ছিল সেটি হল ...
দীপক সেনগুপ্ত

বকুল:   শীতের রাত্রি| পথের ধারে কেরোসিনের আলোগুলি কাঁচের উপর হিম পড়িয়া ধোঁয়াটে হইয়া গিয়াছে| তাহারই উপর দিয়া দুএকটা শিশিরের ফোঁটা গড়াইয়া পড়িয়াছে| তাহার জন্য কাঁচগুলি কাটা বলিয়া মনে হইতেছে| পথের পাশে একস্থানে একটা আতা গাছের নীচে আবর্জ্জনার স্তূপ| তাহার ভিতর গর্ত্ত করিয়া কুকুর-মাতা তাহার সদ্যপ্রসূত সন্তানগুলিকে লইয়া শুইয়া আছে| রাস্তা জনশূন্য| শীতের সন্ধ্যা নামিয়া আসিলেই গৃহস্থ কেহ বড় আর বাহিরে থাকে না| ...
দীনেশরঞ্জন দাশ (দীপক সেনগুপ্তের সৌজন্যে)

ব্যথার প্রদীপ:  সমাজের সমস্ত বিধি বিধান মেনে বামুন পুরুতে ডেকে, মন্ত্র পড়ে মনোহর দাশের সঙ্গে রঙ্গন-এর বিয়ে হয় নি। উভয় পক্ষেরই আত্মীয় কুটুম্বের বালাই ছিল না, এই শুভ কাজে প্রতিবেশীদের নিয়ে উৎসব ক'রে খাওয়ান দাওয়ানর কথাও মনোহরের মনে হয় নি। যৌবন যখন কামনার প্রদীপ বুকের ভিতর জ্বেলে দিয়েছিল, শরীর মন যখন মিলন তৃষ্ণায় পাগল এমন সময় দুজনের দেখা হল দু'দিক হ'তে দু'খণ্ড মেঘ এসে ধীরে ধীরে যেমন পরস্পরের মধ্যে বিলীন হ'য়ে যায় তেমনি ক'রে দু'টি মানুষ পরস্পরের মধ্যে আপনাদের হারিয়ে ফেলেছিল; সাক্ষী ছিলেন ভগবান। ...
গোকুলচন্দ্র নাগ (দীপক সেনগুপ্তের সৌজন্যে)

সে কালের কথা:    যে সময়ের কথা বলিতে যাইতেছি, সে প্রায় একশত বৎসরেরও পূর্ব্বের কাহিনী। তখনকার আচার ব্যবহার রীতি নীতি এক্ষণকার অপেক্ষা স্বতন্ত্র। সে সময় এ দেশের অবস্থা বড় সুখের ছিল, দীন দুঃখী স্নিগ্ধ তৈলাক্ত দেহে দুই বেলায় উদর পূরিয়া আহারান্তে নিজ নিজ কর্ত্তব্য কার্য্য করিত। টাকায় তখন দশ সের তৈল, চারি পাঁচ সের গব্য ঘৃত ও দেড় কি দুই মণ চাউল। ক্ষেত্রে অজস্র শস্য জন্মিত গৃহপালিত গাভিগণ স্বচ্ছন্দ ভাবে দুগ্ধ দান করিত। ...
প্রসন্নময়ী দেবী(দীপক সেনগুপ্তের সৌজন্যে)

উপহাস:   কলকাতা সহরের শীতের কুয়াশা - কুয়াশা তাকে বলা চলে না, কয়লার ধোঁয়ার সঙ্গে শীতের বাতাস মিশে গিয়ে একটা জমাট বাষ্পস্তর। সেই বাষ্পস্তর ভেদ করে এসেছে সকালের রৌদ্র, কলতলা এবং চৌবাচ্চার পাশে এসে পড়েছে কোনো রকমে - একটা চতুষ্কোণ পরিমাণ স্থানকে একটু চিত্রিত করে তুলেছে পিঙ্গল শোকাচ্ছন্ন হাসিতে। সেই স্থান টুকুতে বসে তোলা উনুন পরিষ্কার করতে করতে প্রসন্নময়ী তীক্ষ্ণ কণ্ঠস্বরে ডাকছিলেন, ....
হেমচন্দ্র বাগচী (দীপক সেনগুপ্তের সৌজন্যে)



সম্পাদকীয়
দিলীপ দাস - দুর্গা – যুগে যুগে
ভাস্কর বসু - কি গভীর ‘বাণী’ এলো
ঈশানী রায়চৌধুরী - সুনীলের কবিতা আর আমি
সৌম্যকান্তি জানা - কাকাবাবুর হাত ধরে
আনন্দ দাশগুপ্ত - আমার যৌবনের দুর্গাপূজা, গান ও পড়া
কেয়া মুখোপাধ্যায় - শিউলি মাখা পুজোর লেখা
পল্লব চট্টোপাধ্যায় - ‘শতবর্ষ পরে’
শেখর বসু - শারদীয় আনন্দবাজারে আমার প্রথম উপন্যাস
অতিথি সম্পাদক - ভাস্কর বসু


--- বিশেষ সংখ্যা ---
রবি-স্মরণ - শ্রবণে, শ্রাবণে
জুলাই ৩০, ২০১৪

পল্লব চট্টোপাধ্যায় - এলেম নতুন দেশে
অতিথি সম্পাদক - ভাস্কর বসু

অবসর-এ প্রকাশিত কিছু লেখা এখন ই-বুক-এ (EPUB - format) পাবেন। বইয়ের ওপর ক্লিক করে ডাইনলোড করুন। এগুলো i-pad-এ বা Firefox ও Google Chrome ব্রাউসার-এ Epub Reader এক্সটেনশন লাগিয়ে পড়তে পারবেন।

-


সাম্প্রতিক ধারাবাহিক

পূর্বে প্রকাশিত কিছু লেখা


কেউকেনহফ (হল্যাণ্ড) - দ্য গার্ডেন অফ ইউরোপ

ছবিঃ কৌস্তভ নিয়োগী


সাইটিটি ব্যবহার করার আগে কপিরাইট ও ডিসক্লেইমার দেখুন। এই সাইট সম্পর্কে আপনাদের মতামত দয়া করে এখানে ক্লিক করে অবসরকে জানান।


 

First Page | City Information | Recreation | News | Law & Administration | Science and Technology | Arts & Literature | Society and Culture | Health | Environment | Women | About Abasar | Terms of Use | Contact us







     

Copyright © 2014 Abasar.net. All rights reserved.


অবসর-এ প্রকাশিত পুরনো লেখাগুলি 'হরফ' সংস্করণে পাওয়া যাবে।


হে নূতন, দেখা দিক আরবার


আজকের খবর


ভারতকোষ


অন-লাইন গীতবিতান


রহস্য রোমাঞ্চের ওয়েবসাইট


বিবিধ প্রসঙ্গ


ছবিতে ভ্রমণ


ভ্রমণ কাহিনী


ভিডিওতে ভ্রমণ


ছোটদের পাতা


প্রবন্ধ


রান্নার রেসিপি


পুরনো বাঙলা ছায়াছবির তথ্যভাণ্ডার


পুরানো সাময়িক পত্র থেকে কিছু নির্বাচিত রচনা


পুরানো সাময়িকী ও সংবাদপত্রের ইতিকথা


ধাঁধা ও অঙ্কের খেলা


কৌতুকী


বাংলার পাখি


বাংলার ফুল


বিশেষ সংখ্যাঃ জুলাই ৩০, ২০১৪


বিশেষ সংখ্যা সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৪


ইংল্যাণ্ডের অ্যামাজন লিঙ্ক
ক্যানাডার অ্যামাজন লিঙ্ক